Shakib-al-Hasan-1
আট রানে তিন উইকেট নিয়ে শাকিব ম্যান অফ দ্য ম্যাচ © AFP (File Photo)

মার্চ ১৬, ২০১৪

লাইভ স্কোরকার্ডের জন্য এখানে ক্লিক করুন

বাংলা পড়তে অসুবিধে হলে অভ্র কীবোর্ড ব্যবহার করুন

আইসিসি বিশ্ব টি২০ প্রতিযোগিতার প্রথম ম্যাচে মীরপুরে আমি অভিষেক মুখার্জি আপনাদের স্বাগত জানাচ্ছি। আজকের ম্যাচ অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ, কারণ আজকের বিজয়ী দলের মূলপর্বে যাওয়ার সম্ভাবনা বেড়ে যাবে। নিজের দেশে সমর্থকদের সামনে বাংলাদেশকে হারানো রীতিমত শক্ত, বিশেষতঃ তাদের আক্রমণাত্মক ব্যাটিং আর এই পিচের জন্য আদর্শ বোলিংএর জন্য। আফগানিস্তান এশিয়া কাপে বাংলাদেশকে সদ্য হারিয়ে থাকলেও আজ তাদের শূন্য থেকে শুরু করতে হবে। 

_______________________________

 

আজকের মত এইটুকুই। বাংলাদেশের পরের ম্যাচ পরশু নেপালের বিরুদ্ধে। সেদিন আবার অনলাইন ধারাভাষ্য নিয়ে আমি, অভিষেক, আপনাদের সঙ্গে থাকব।

 

 
শাকিব অল্‌ হাসান ম্যান অফ দ্য ম্যাচ।
 

 

 

 
নবি ৩-০-১১-০ শপূর জাদরান ১-০-৭-০ সাদিক ২-০-১৭-১ দৌলত জাদরান ২-০-১৩-০ শেনওয়ারি ৩-০-১৪-১ আফতাব ১-০-১৫-০
 

 

 

 
বাংলাদেশের ইতিহাসে বৃহত্তম জয়।
 

 

ছয়! এগিয়ে এসে, লং-অনের ওপর  দিয়ে! খেলা শেষ!

 

আবার স্টাম্পিংএর আবেদন! আবার অগ্রাহ্য!

 

স্টাম্পিংএর আবেদন অগ্রাহ্য করলেন তৃতীয় আম্পায়ার কুমার ধর্মসেনা। 

 

দু’দলের স্কোর সমান।

 
 
 

 

 

অফস্টাম্পের ওপর বল, আনামুল এগিয়ে এসে এক্সট্রা কভারের ওপর দিয়ে তুলে দিলেন, চার!

 

ছ’রান বাকি। এক বলেও হতে পারে।

 

চার! আবার লেগস্টাম্পে, ফ্লিক, ফাইন লেগের ধরাছোঁয়ার বাইরে!

 

চার! আফতাব লেগস্টাম্পে ফুলটস দিলেন, ফাইন লেগ বৃত্তের ভেতরে ছিল, লেগ-গ্লান্স! 

 

 
দৌলত জাদরান ভাল বল করলেন, কিন্তু বিশেষ লাভ হল না।
 

 

 

 

চার! শাকিব এগিয়ে এসে লং-অন দিয়ে তুলে মারলেন!

 
চুয়ান্ন বলে তেইশ রান বাকি। খুব সহজে হওয়া উচিত।
 

 

 

 

 
উইকেট পড়ল ঠিকই, কিন্তু আফগানিস্তানের জেতার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে।
 

 

 
তামিম ফরওয়ার্ড ডিফেন্সিভ খেললেন, কিন্তু লাইন ফস্কে প্যাডে লাগল। নাইজেল লং আউট ঘোষণা করলেন।
 
তামিম এল-বি-ডবলিউ বোল্ড শেনওয়ারি ২১ (২৭)!

 

 

 
আর তেরো ওভারে ঊনত্রিশ রান দরকার। অনায়াসে হওয়া উচিত।
 

 

চার! হালকা শর্টপিচ, তামিমের সপাটে পুল!

 

 
অর্ধেক রান হয়ে গেছে বাংলাদেশের। কত সময় নেবেন তামিম-আনামুল?
 

 

ছয়! সোজা এগিয়ে লং-অনের মাথার ওপর দিয়ে!

 

চার! অফব্রেকে ফাইন লেগ দিয়ে!

 
নবি চমৎকার বল করলেন, কিন্তু শেষ বলে আনামুল ছয় মেরে চাপ কমালেন।
 

 

 

ছয়! নবি ফ্লাইট দিলেন, আনামুল লং-অনের ওপর দিয়ে সোজা তুলে দিলেন!

 
সাদিক ভাল বল করলেন, কিন্তু উইকেট দরকার আফগানিস্তানের। আর ৫৭ রান বাকি।
 

 

সাদিক এলেন।

 

 

 
নবির বল রীতিমত ঘুরছে। শীগ্‌গিরই সাদিককে দেখা যাবে কি?
 

 

খট্‌খটে শুকনো পিচ, পড়লেই ধূলো উড়ছে। নবির বল সাংঘাতিক ঘুরছে।

 
শপূর জাদরান রীতিমত জোরে বল করলেন, কিন্তু দ্রুত উইকেট না পড়লে আফগানিস্তানের জেতার বিশেষ সম্ভাবনা নেই।
 

 

 চার! এগিয়ে এসে কভার ড্রাইভ, সোজা সীমানার বাইরে!

 
প্রথম ওভারে নতুন বলেই নবি রীতিমত ঘোরালেন।
 

 

 

 
মোর্তাজা ২-০-৮-১ অল্‌-অমীন ২-০-১৮-০ শাকিব ৩.১-০-৮-৩ মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ ৪-১-৮-১ রজ্জাক ৪-০-২০-২ শাব্বির ১-০-১-০ রেজা ১-০-২-১
 

 

 

 

 
শাকিবের বল সাংঘাতিক ঘোরায় জাদরানকে সম্পূর্ণ দিশেহারা দেখাল।
 
আউট! শপূর জাদরান বোল্ড শাকিব ১(১০)!

 

 
আর ১৮ বল। আফগানিস্তান টিকতে পারবে কুড়ি ওভার?
 

 

 

 
উঁচু শট, ডীপ এক্সট্রা কভারে দুর্দান্ত ক্যাচ! পেছনদিকে অনেকটা দৌড়ে মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ দুর্দান্ত ক্যাচ ধরলেন!
 
আউট! দৌলত জাদরান কট মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ বোল্ড রেজা ১(৬)!

 

 

 

 
শব্বিরের ওভারেও মাত্র এক রান উঠল।
 

 

 

 
মেডেন। মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ ৪-০-৮-১।
 

 

 

 
পুল করার চেষ্টা, ব্যাটে লেগে উরুতে লেগে সোজা কীপারের হাতে!
 
আউট! শফিকউল্লাহ্‌ কট মুশফিকুর বোল্ড মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ ১৬(১৬)!

 

 

 
লেন্থের বল ব্যাকফূটে খেলতে গিয়ে আউট!
 
আউট! শেনওয়ারি এল-বি-ডবলিউ বোল্ড রজ্জাক ১(৩)!

 

 

 
 
 

 

 

 

 
ডীপ মিড-উইকেট থেকে সোজা থ্রো! দু’রানের চেষ্টা করতেই আউট!
 
আউট! সাদিক রান আউট (নাসির) ১০(২৩)!

 

 

 

 
মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ ৩-০-৮-০। আফগানিস্তানের দ্রুত রান দরকার।
 

 

 

 
আবার দুর্দান্ত ওভার রজ্জাকের। স্পিনারদের সামনে আফগানিস্তানকে দিশেহারা দেখাচ্ছে।
 

 

 

 
দুর্দান্ত স্পিনের মাঝখানে হঠাৎ আর্ম-বল; বল উইকেটের একেবারে সামনে আঘাত করেছিল।
 
আউট! নবি এল-বি-ডবলিউ বোল্ড রজ্জাক ৩(৯)!

 

 
আফগানিস্তান আবার রান নিতে ব্যর্থ। অল্‌-অমীনের ১৫ রানের ওভারের পর থেকে রান ওঠেইনি বললে চলে।
 

 

 
শাকিব, মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌-র পর এবার রজ্জাক। আফগানিস্তান রীতিমত বিপদে।
 

 

 

 
নবি ১(৪), সাদিক ১(৪)
আত্মঘাতী ক্রিকেট খেলে আফগানিস্তান রীতিমত বিপদে। বেপরোয়া শট আর ঝুঁকি নিয়ে দৌড় তাদের কাল হয়েছে।

 

 

 

 
ফ্লিক করে খুচরো সিঙ্গলের চেষ্টা, কিন্তু শাব্বির নিখুঁত থ্রোয় রান আউট!
 
আউট! মঙ্গল রান আউট (শাব্বির) ০(১)!

 

 

 
পাওয়ারপ্লে শেষ। শাকিব ২-০-৬-২।
 

 

 

 
 
ফ্লিক করতে গিয়ে কানায় লেগে সোজা কভারে ক্যাচ!
আউট! তারাকাই কট মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ বোল্ড শাকিব ৭(১১)!

 

 

 

 
 
আগের শটের পুনরাবৃত্তি করতে গেলেন নঈব, কিন্তু এবারে শাব্বির ভুল করেন নি।
আউট! নঈব কট শাব্বির বোল্ড শাকিব ২১(২২)!

 

 

চার! নঈব শাকিববে লং-অন দিয়ে ছয় মারতে গেলেন, শাব্বির লোপ্পা ক্যাচ ফেললেন।

 
অল্‌-অমীনের ওভারে পনেরো রান উঠল।
 

 

 

লেগবাই চার! লেগ গ্লান্স করতে গিয়ে ফসকালেন নঈব, কিন্তু প্যাডে লেগে সোজা চার!

 

চার! পরের বলে নঈব আবার চার মারলেন, এবার একস্ট্রা কভার দিয়ে!

 

চার! তুলে মারাত্মক স্লগ, লং-অনের ওপর দিয়ে সোজা!

 

নো-বল! ফ্রী-হিট! নঈব!

 
শাকিবের বলে রীতিমত অসহায় দেখিয়েছে নঈবকে।
 

 

এল-বি-ডবলিউয়ের অ্যাপিল নাকচ; ব্যাটে লেগেছিল।

 

চতুর্থ ওভারেই শাকিব।

 

 
আক্রমণাত্মক মেজাজে আফগানিস্তান। যে কোনও বলে দৌড়তে বা রান নিতে চেষ্টা করে যাচ্ছে ব্যাটসম্যানরা।
 

 

 

 

চার! অসাধারণ পুল! সোজা সীমানার বাইরে!

 

 

আবার রান আউটের সম্ভাবনা ছিল। নঈব আর তারাকাইয়ের মধ্যে বোঝাপড়া বিশেষ সুবিধের মনে হচ্ছে না।

 

 

 

অল্‌-অমীনের এল-বি-ডব্লিউ আবেদন অগ্রাহ্য হয়, আর আবার শেষ বলে রান আউটের সম্ভাবনা দেখা যায়।
 

 

 

ছয়! অল্‌-অমীনের বল সামান্য শর্ট পড়েছিল, নঈব অন-ড্রাইভ করায় বল সোজা সীমানার বাইরে!

 

 
সুন্দর ওভার। শেষ বলে রান আউটের সম্ভাবনা ছিল, হয়নি।
 

 

 

 
 
প্রতিযোগিতার প্রথম বল অফস্টাম্পের বাইরে ওভারপিচ, শহজাদ শরীর থেকে অনেক দূরে মারলেন, মিড-অফ থেকে দৌড়ে গিয়ে মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ দারুণ ক্যাচ ধরলেন। কভারের সঙ্গে ধাক্কা লাগার সম্ভাবনা ছিল।
আউট! শহজাদ কট মাহ্‌মুদউল্লাহ্‌ বোল্ড মোর্তাজা ০ (১)!

 

মুশফিকুর টসে জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

 

বাংলাদেশ: মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল, আনামুল হক, শাকিব অল্‌ হাসান, শাব্বির রহমান, নাসির হোসেন, মহম্মদ মাহমুদ্দউল্লাহ্‌, ফরহদ রেজা, মশরফে মোর্তজা, অল্‌-অমীন হোসেন, আবদুর রজ্জাক।

আফগানিস্তান: মহম্মদ নবি, মহম্মদ শহজাদ, নওরোজ মঙ্গল, করিম সাদিক, শফিকউল্লাহ্‌ শফিক, গুলবদন নঈব, শামিউল্লাহ্‌ শেনওয়রি, দৌলত জাদরান, শপূর জাদরান, আফতাব আলম, নজীব তারাকাই।